গাবতলীতে গৃহবধুর ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক শারীরিক সম্পর্ক করায় ধর্ষণ মামলা

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ৮ জুলাই, ২০২৪
  • ৩১ বার পঠিত

গাবতলীতে গৃহবধুর ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক শারীরিক সম্পর্ক করায় ধর্ষণ মামলা

স্টাফ রিপোর্টারঃ
বগুড়ায় গতকাল গাবতলী মহিষাবান ইউনিয়নের চক-মড়িয়া গ্রামের আব্দুল হামিদের মেয়ে,রুবেল মিয়া’র স্ত্রী জৈনক মহিলা (২২) এর সাথে অনৈতিক ভাবে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলার কারণে একই ইউনিয়নের ধোড়া মধ্যপাড়া গ্রামের মৃত মজিবর রহমান মন্ডলের ছেলে দৌলত ইসলাম দলু মন্ডল (৫২) এর বিরুদ্ধে গাবতলী মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায় যে,শাহিনুর খাতুন সম্পা’র সাথে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে অবৈধ ভাবে অনৈতিক শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলার কারণে তাঁর বড় ভাই শামীম হোসেন (২৬) গাবতলী মডেল থানায় হাজির হয়ে দৌলত ইসলাম @ দলু মন্ডলকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। উক্ত আসামীর স্ত্রী মিনিছা বেগম প্রায় ০৩ বছর যাবৎ শারীরিক ভাবে অসুস্থ্য থাকার কারণে শাহিনুর খাতুন সম্পাকে মাসিক বেতনে প্রায় ০৩ বছর ধরে তার সংসারের বিভিন্ন কাজ কর্ম করাতো। আর সেই সুযোগেই আসামী দলু ভুক্তভোগীকে বিয়ের প্রলোভন ও জায়গা জমি লিখে দেয়ার কথা বলে তার সাথে শারীরিক সম্পর্ক করার জন্য বিভিন্ন সুযোগ খুজতে থাকে। এক পর্যায়ে বিভিন্ন সময়,বিভিন্ন তারিখে তাকে নানা রকম ভয়-ভীতির হুমকি দেখিয়ে তার সাথে একাধিক বার আসামী তার নিজ বসতবাড়ীতে ভুক্তভোগীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে হাত দিয়ে পড়নের কাপড় খুলে খাটের উপর শুয়াইয়ে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে গত ১৫জুন আসামীর স্ত্রী মিনিছা বেগম অসুস্থ্য কারণে চিকিৎসার জন্য বগুড়া শহরে গেলে বাড়ীতে কেউ না থাকার সুযোগে অবৈধ ভাবে অনৈতিক শারীরিক সম্পর্ক করে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। ধর্ষণ শেষে আসামী দৌলত ইসলাম দলু মন্ডল বিষয়টি কাউকে না জানানোর জন্য বিভিন্ন প্রকার ভয়-ভীতি হুমকি প্রদর্শন করে চলে যায়।

এবিষয়ে গাবতলী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল কালাম আজাদ বিষয়টি নিশ্চিত করেন এবং জানায়,বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে যথাযথ আইনগত বিধি-ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।

Please Share This Post in Your Social Media

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর